বিষয়: নজরুলসঙ্গীত
কালানুক্রমিক সংখ্যা ১৩৩
গান সংখ্যা: ১৯৬৯
শিরোনাম:
পুরবের তরুণ অরুণ পুরবে আসলে ফিরে।

 
            রাগ দেশ
কে শিব সুন্দর শরৎ-চাঁদ চূড়
        দাঁড়ালে আসিয়া এ অঙ্গনে।
পীড়িত নরনারী আসিল গেহ ছাড়ি'
        ভরিল নভতল-ক্রন্দনে॥
বেদনা-মন্দিরে আরতি বাজে তব,
কে তুমি সুন্দর শ্মশানচারী নব,
দিগদিগন্তরে জীবন-উৎসব-
         শঙ্খ শুনি তব আগমনে॥ 
মৃত্যু-জয়ী তুমি হওনি সুধা পিয়ে,
দুখেরে দহিয়াছ বিষের দাহ দিয়ে।
ভূষণ করি ফণী আদরে দিয়ে দোলা
কি মণি পেলে বলো ওগো ও চির-ভোলা!
কভু সে ডম্বরু বাজাও অম্বরে,
প্রলয়-নর্তন জাগে চরাচরে,
            ললাট-জ্বালা-পাশে
            চন্দ্রলেখা হাসে
                নবীন সৃষ্টির হরষনে॥ 
পতিতা গঙ্গারে ধরিলে নিজ শিরে,
কন্যারূপে তাই পেলে কি ভারতীরে,
            স্বরগ এল নেমে
            মরতে তব প্রেমে,
            নমামি দেব-দেব ও-চরণে॥  
 

ক. রচনাকাল ও স্থান:  গানটির রচনাকাল সম্পর্কে সুনির্দিষ্টভাবে কিছু জানা যায় না। ১৩৩৫ বঙ্গাব্দের কার্তিক মাসে প্রকাশিত হয়েছিল 'বুলবুল' নামক সঙ্গীত-সংকলনে প্রথম অন্তর্ভুক্ত হয়েছিল। এই সময় নজরুলের বয়স ছিল ২৯ বৎসর ৭ মাস।